নিশো-মেহজাবিনের ‘অ্যাপয়েন্টমেন্ট লেটার’ নাটক রিভিউ

অ্যাপয়েন্টমেন্ট লেটার

মেহজাবিনের হাতে অবশেষে চলে এলো নিশোর অ্যাপয়েন্টমেন্ট লেটার! তবে তা আসলো রুশো আহমেদের গল্প ভাবনায় এবি রোকনের পরিচালিত নাটকে। নিশো-মেহজাবিন অভিনীত ‘অ্যাপয়েন্টমেন্ট লেটার’ নামের নাটকটি রিলিজ পেয়েছে সিনেমাওয়ালা ইউটিউব চ্যানেলে। ‘ফ্রুট ফান বিস্কুট’ নিবেদিত ৪৩ মিনিটের এই নাটকটি প্রচারের মাত্র ৩ ঘন্টার মাঝেই ইউটিউবে ১ লক্ষাধিক ভিউ অতিক্রম করেছে।

নির্মাতা হিসেবে প্রথম নাম লেখানো এবি রোকন তাঁর প্রথম কাজেই চমক দেখালেন দর্শকদের। অবশ্য, এর আগে তিনি জনপ্রিয় নির্মাতা মোস্তফা কামাল রাজের সহকারী হিসেবে কাজ করেছেন। তবে নির্মাতা হিসেবে ‘অ্যাপয়েন্টমেন্ট লেটার’ -ই তাঁর প্রথম কাজ।

রুপায়নের আজকের পোস্টে থাকছে নিশো মেহজাবিনের ‘অ্যাপয়েন্টমেন্ট লেটার’ নাটক রিভিউ…

এক নজরে ‘অ্যাপয়েন্টমেন্ট লেটার’ নাটক

appointment-letter-natok

নাটকটির গল্পে নিশো পড়াশুনা শেষে যথারীতি চাকুরী খুঁজছে। একের পর এক চাকুরীর ইন্টারভিউও দিয়ে যাচ্ছে। অন্যদিকে প্রেমিকা মেহজাবিনের বিয়ের সময় চলে এসেছে। বলতে গেলে, সমসাময়িক নাটকগুলোর গল্পের সাথে একদম মিলে যাওয়া একটি গল্প। কিন্ত সাধারন গল্প থেকেই পর্দায় অসাধারন দৃশ্যপট ফুটিয়ে তোলা নাটকের উদাহরণও কিন্ত কম নয়! তেমনই অসাধারন চমক দেখিয়ে দিল এবি রোকনের পরিচালিত ‘অ্যাপয়েন্টমেন্ট লেটার’ নাটকটি। দর্শকদের কাঁদাতেও পারে শেষ দৃশ্যগুলো! সেরকম অভিনয় দক্ষতারই পরিচয় দিয়েছে চলতি সময়ের জনপ্রিয় জুটি নিশো-মেহজাবিন।

গল্পঃ রুশো আহমেদ
রচনা, চিত্রনাট্য ও পরিচালনাঃ এবি রোকন
উপদেষ্টাঃ মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ
অভিনয়ঃ আফরান নিশো, মেহজাবিন চৌধুরী, রুশো শেখ, ফখরুল বাশার মাসুম, মিলি বাশার সহ আরও অনেকে
চিত্রগ্রহনঃ আদিত্য মনির
সম্পাদনাঃ সবুজ খান এবং রবিউল আব্দুল্লাহ
গানঃ ফেরাতে পারিনি
লিরিক্সঃ মাহমুদ মনজুর
গায়কঃ রিহান রাসুল
সুরঃ নাভিদ পারভেজ
প্রযোজনাঃ সিনেমাওয়ালা

আমার চোখে ‘অ্যাপয়েন্টমেন্ট লেটার’

দর্শক হিসেবে আমি আবেগী! তাই এক কথায় বলতে হয়, কেঁদেছি! যেমনটা কেঁদেছিলাম ‘বড় ছেলে’ নাটক দেখার পর! কাঁদানোর মতো নাটক বানাতে অসাধারন গল্পের প্রয়োজন নেই। শুধু প্রয়োজন জীবনের বাস্তবতার গল্পগুলোকে সাবলীলভাবে পর্দায় তুলে ধরা। যেমনটা প্রমান করেছিল ‘বড় ছেলে’ -এর মত হিট নাটক। তেমনটিই সম্ভবত আবারো প্রমান করলো হিট হতে যাওয়া নাটক ‘অ্যাপয়েন্টমেন্ট লেটার’! হিট হতে যাওয়ার কারণ হিসেবে আপাতত ইউটিউবের ভিউ ট্রেন্ডসটাকেই বিচারের মাপকাঠি হিসেবে নিলাম। যদিও ইউটিউব ভিউ কখনও নাটকের মান পরিমাপ করার মাপকাঠি হতে পারেনা। তবে মাত্র ৩ ঘন্টায় ১ লক্ষাধিক ভিউস নিশ্চই একটি দারুণ প্রাপ্তি! মাত্র দু’দিন আগে নাটকটির ট্রেইলারটিও ইউটিউবে এখন পর্যন্ত দেড় লক্ষাধিক ভিউ হয়েছে। তাই নিঃসন্দেহে বলা যায়, নাটকটির প্রতি দর্শকদের আগ্রহ আগে থেকেই ছিল। আর সেই অনুযায়ী, দর্শকদেরকে মোটেও হতাশ করেননি নতুন পরিচালক এবি রোকন।

appointment-letter-natok-members

সাম্প্রতিক সবগুলো প্রেমের নাটকের সাথেই চাকুরী খোঁজার বিষয়টি মিলে গিয়েছে এই নাটকটির গল্প ভাবনার সাথে। তবে পরিনতি মোটেও সুখের ছিল না। চোখের সামনে ভালবাসার মানুষকে হারানোটা যে কতটা বিষাদময়। সেটাই আবারো দেখতে হল অ্যাপয়েন্টমেন্ট লেটারে। নাটকটির নামেই যদিও গল্পের বিষয়টা উঠে এসেছে। তাই নাটকটি দেখা শুরু করলেও অনেকেই পুরো গল্পটিই আঁচ করতে পারবেন। তবে আবেগের সাথে পর্দায় সক্ষমভাবে পুরো নাটকটি ফুটিয়ে তুলতে পেরেছে পরিচালক। গল্পের সাথে নাটকের নামের মিল থাকলেও আমার মতে নাটকের নামটিতেই গল্পের ইঙ্গিত না দিলে চমকের মাত্রাটা আরেকটুখানি বেশি হওয়ার সুযোগ ছিল। চলতি সময়ের প্রেমের নাটকগুলোতে সাধারনত প্রথম অংশটুকু প্রেম-রোমান্টিকতা আর শেষ অংশটুকুতে মিলন অথবা বিচ্ছেদই দেখতে পাই সাধারনত। তবে এদিক থেকে ভিন্ন স্বাদ পেলাম অ্যাপয়েন্টমেন্ট লেটারে। বলতে গেলে নাটকটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্তই বিষাদে ভরপুর। ভালবাসার মানুষকে হারানোর অনুভূতিটা সফলভাবেই উঠে এসেছে মেহজাবিন এবং নিশোর অভিনয়ে। অভিনয়ে এই জুটি যথেস্ট ম্যাচিউরড। তাই নিশো-মেহজাবিনকে আলাদাভাবে বিশেষায়িত করার প্রয়োজন নেই। সত্যিই অসাধারন।

আর আলাদাভাবে প্রশংসিত করতে চাই অ্যাপয়েন্টমেন্ট লেটারের ‘ফেরাতে পারিনি’ গানটিকে। গল্প, দৃশ্যপট আর সাথে এই গান! এক কথায় মিলে মিশে একাকার। গানটি নাটকটিকে আরও বেশিই আবেগঘন করতে পেরেছে। মাহমুদ মনজুরের গানের কথায় ও নাভিদ পারভেজের সুরে গানটি গেয়েছেন রিহান রাসুল।

পরিচালক হিসেবে এবি রোকনের প্রথম কাজকে ইতিবাচকভাবেই নিয়েছে দর্শকরা। শুভ কামনা এবি রোকনের জন্য। ‘অ্যাপয়েন্টমেন্ট লেটার’ নাটকটি দেখতে এখনই ক্লিক করুন https://youtu.be/zYiQZ3rkxxc

https://youtu.be/zYiQZ3rkxxc

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *