বিনোদন

সমাজের মুখোশ খুলে দিল বান্নাহ’র “চোর” (শর্টফিল্ম রিভিউ)

চোর শর্টফিল্ম

দেশের অন্যতম জনপ্রিয় ডিজিটাল বিনোদন সেবা প্লাটফর্ম ‘আইফ্লিক্স‘ -এ রিলিজ পেয়েছে মাবরুর রশীদ বান্নাহ’র “চোর” শর্টফিল্ম। দ্বিতীয়বারের মতো আইফ্লিক্সে প্রকাশ হল জনপ্রিয় এই নাট্যনির্মাতার শর্টফিল্ম। এর আগে আইফ্লিক্সেই রিলিজ হয়েছিল “ব্রা-দার শর্টফিল্ম“।

গ্রামের একটি সাধারন চোর চরিত্রের মাধ্যমে সমাজের কিছু বাস্তবতা এবং উঁচু শ্রেণীর চোরদের তুলে ধরা হয়েছে এই শর্টফিল্মটিতে। রুপায়নের আজকের পোস্টে থাকছে এই “চোর” শর্টফিল্মের কথা।

এক নজরে “চোর” শর্টফিল্ম

গ্রামের অন্য সাধারন চোরদের মতই ফারুক একজন ছিচকে চোর। প্রতিনিয়ত চুরি করে এবং বরাবরের মতই তাঁর বিচার বা সালিশ করে মারধর করা হয়। গ্রামের লোকদের কাছে কাজ চেয়েও ফারুক চোরকে সবাই ফিরিয়ে দেয়। কোন উপায় না পেয়ে একমাত্র অসুস্থ ছোট ভাইকে খাওয়ানো এবং চিকিৎসার জন্যই শুধুমাত্র সে চুরি করে। বারবার ধরা পরার পরেও সে এই চুরি পেশা ছাড়তে পারেনা। এক বিচারে শেষবারের মতো গ্রামের চেয়ারম্যান ফারুক চোরকে তাঁর ছোট ভাইয়ের কসম কাটিয়ে চুরি না করার জন্য বলেন। ফলে সে ভাল হওয়ার চেস্টা করে। কিন্ত এবারেও তাঁকে কেউ কাজ দিয়ে সহযোগিতা করেনি। চুরি ছেড়ে দেয়ার পরেও অকারনেই তাঁকে চোর হিসেবেই সবাই তিরস্কার করেছে। শেষ পর্যন্ত ফারুক চোরকে পিটিয়ে মেরে ফেলা হলেও মৃত্যুর আগে সালিশে সে সমাজের উঁচু শ্রেণীর চোরদের চুরির কথা সকলের সামনে বলে গেছে। কি ছিল সেইসব কথা? স্তব্ধ হয়ে দেখার মতো সেই শেষ মুহূর্তটি দেখার জন্য আপনাকে দেখতে হবে মাবরুর রশীদ বান্নাহ পরিচালিত “চোর” শর্টফিল্মটি। উল্লেখ্য যে, ফারুক চোরের চরিত্রটি অমায়িকভাবে ফুটিয়ে তুলেছে এ সময়ের ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা আফরান নিশো।

শর্টফিল্মঃ চোর (Chor/Thief)
গল্প, কাহিনীচিত্র সংলাপ ও পরিচালনাঃ মাবরুর রশীদ বান্নাহ
অভিনয়ঃ আফরান নিশো, সিয়াম নাসির, শোয়েব মুনির, মন্দিরা চক্রবর্তী।
প্রধান সহকারী পরিচালকঃ এম এ তৌফিক
সহকারী পরিচালকঃ এসকে অমিত এবং রাকিব হক
ব্যাপ্তিকালঃ ২১ মিনিট
প্রচারঃ আইফ্লিক্স

চোর শর্টফিল্ম রিভিউ

chor-shortfilm-scene

ফেসবুক ও ইউটিউবে চোর শর্টফিল্মটার ট্রেইলার ঘুরছিল যখন। তখন ট্রেইলারটি দেখেই দিন গুনছিলাম কবে রিলিজ পাবে শর্টফিল্মটি। অবশেষে আজ ডিসেম্বর ২৭ তারিখে আইফ্লিক্সে রিলিজ পেল মাবরুর রশীদ বান্নাহ পরিচালিত চোর শর্টফিল্মটি। ট্রেইলারটি দেখে দর্শকরা মজা পেলেও পুরো শর্টফিল্মটি দেখার পর বুঝতে পারবে যে, “চোর” শর্টফিল্মটি মোটেও কমেডি নির্ভর নয়। শুধু প্রথম দৃশ্যটি ছিল মজার। বাকি পুরোটাই ছিল বাস্তবতায় ভরপুর।

শর্টফিল্মটির চোর চরিত্রের জন্য শতভাগ পারফেক্ট ছিল নিশো। দর্শকরা নিঃসন্দেহে চরিত্রটিতে নিশোর বিকল্প হিসেবে অন্য কাউকে ভাবার সুযোগ পাবেনা। ২১ মিনিটের এই শর্টফিল্মটিতে চোরকে ঘিরে দেখানো হয়েছে যে, সমাজের ছিচকে চোরকে আমরা কি পরিমান তিরস্কার করি। কিন্ত তাঁদেরকে সঠিক পথে আসতে বলা হলেও সঠিক পথে আসার পথটি কেউ দেখিয়ে দেই না। সহযোগিতা তো দূরের কথা! শেষ দৃশ্যে আরও দেখানো হয়, ছিচকে চোরকে নিয়ে আমাদের মাথা ব্যাথা অনেকটা বেশি হলেও সমাজের উঁচু শ্রেণীর সবচেয়ে বড় চোরগুলোকে আমরা বরাবরই টিনের চশমা দিয়ে দেখি। কিংবা ভুলক্রমে দেখে থাকলেও না দেখার অভিনয় করি!

নিশোর অসাধারন অভিনয়ে আর বান্নাহ’র ফ্রেমে চোর শর্টফিল্মটি দেখতে এখনই ক্লিক করুন https://iflix.onelink.me/QRBE/NishoinChor এই লিংক। চোর শর্টফিল্মটি নিয়ে আপনার মতামত জানাতেও ভুলবেননা কিন্ত!

লেখক সম্পর্কে জানুন

আব্দুল্লাহ আল মারুফ

আমি মারুফ। রংপুরে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে একাউন্টিং নিয়ে পড়াশুনা করছি। পড়াশুনার পাশাপাশি অনলাইন মার্কেটপ্লেসে কাজ করছি ফ্রিল্যান্স আইটি প্রফেশনাল হিসেবে। আর ভাললাগে অনলাইনে লেখালেখি করতে...

মন্তব্য দিন