ফিরে দেখা ২০১৮ – সোশ্যাল মিডিয়া কাঁপিয়েছে যেসব ভাইরাল ঘটনা!

year-review-2018-bangla

ফিরে দেখা ২০১৮ : শেষের পথে ২০১৮। কেমন গেল এই বছরটি? কয়েক সেকেন্ডের জন্য এই বছরটিকে নিয়ে ভাবুন তো! কি? সারা বছর জুড়ে ঘটে যাওয়া ভাইরাল ঘটনাগুলোই শুধু মাথায় ঘুরছে। তাই তো? হ্যাঁ, বাংলাদেশের বর্তমান প্রেক্ষাপটে ফেসবুকের কল্যাণে কিছু ঘটনা এতোটাই আলোচিত হয় যে। ঘটনাগুলো ভুলে যাওয়া অসম্ভব। তবে একসাথে সারা বছরের ঘটনাগুলোও মনে করা সম্ভব নয়। তাই আপনাদের জন্য আজ রিভিউ করছি ২০১৮ সালকে। তুলে ধরার চেস্টা করেছি চলতি বছরের কিছু আলোচিত ভাইরাল টপিকগুলো। চলুন, একনজরে দেখে নেই, কেমন ছিল ২০১৮!

ফিরে দেখা ২০১৮ – ক্রাশ অফ দ্য ইয়ার ‘প্রিয়া প্রকাশ’

Priya-Parkash

বছরের শুরুতেই কোটি কোটি তরুণের ঘুম কেঁড়ে রাতারাতি সেলিব্রেটি বনে গিয়েছিল ‘প্রিয়া প্রকাশ‘। ২০১৮ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারিতে মালায়াম সিনেমা ‘উরু আদার লাভ’ -এর একটি ছোট্ট ক্লিপস হঠাত ভাইরাল হয়ে যায় অনলাইন জগতে। কিশোর প্রেম নিয়ে ছোট ঐ ভিডিও ক্লিপটিতে দেখা যায়, ‘প্রিয়া প্রকাশ’ নামের মেয়েটি তাঁর বন্ধুকে চোখ মারে। আর সেই দৃশ্যই মুহূর্তে হৃদয় কেড়ে নিয়েছিল কোটি কোটি তরুণের। আর তাতেই রাতারাতি তারকা বনে যায় এই ‘প্রিয়া প্রকাশ’। তাই বছর শেষে আলোচিত এই ‘প্রিয়া প্রকাশ’ -কে ‘ক্রাশ অফ দ্য ইয়ার’ বললেও ভুল হবেনা!

ফিরে দেখা ২০১৮ – এক চুমুতেই কাপলো ফেসবুক!

public-kiss-in-bangladesh

বৃষ্টি আর প্রেমিকা মানেই রোমান্টিকতা। আর সেই রোমান্টিকতা থেকে প্রকাশ্যে চুমু দিয়েই রাতারাতি বাংলাদেশের ফেসবুক জগত কাঁপিয়েছে এক যুগল। বহির্বিশ্বের দেশগুলোতে প্রকাশ্যে চুমু দেওয়াটা স্বাভাবিক হলেও। বাংলাদেশের মতো মুসলিম প্রধান দেশে প্রকাশ্যে চুমু খাওয়ার মতো সাহসিকতাকে মেনে নিতে পারেনি সাধারণ মানুষ। ঘটনাটি ২৩ জুলাইয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি মোড়ে। বৃষ্টিস্নাত দিনে রাস্তার পাশে চায়ের দোকানে বসে রোমান্টিকতা আর খুনসুটি চলছিল এক প্রেমিক জুটির। আর, এসময় প্রকাশ্যে চুমুর দৃশ্যটির ছবি তুলে এক ফটো সাংবাদিক। ফেসবুকে ছবিটি প্রকাশের সাথে সাথেই মুহূর্তেই বিতর্কের জন্ম দেয় সাধারণ ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মাঝে। অধিকাংশ মানুষ নেতিবাচকভাবে নিলেও, কিছু মানুষ ইস্যুটিকে স্বাভাবিকভাবেই নিয়েছে। এছাড়াও চলতি বছর শেষের দিকে এসে আবারো প্রকাশ্যে চুমুর ইস্যুতে আলোচিত হয় জনপ্রিয় সালমান মুক্তাদির ও জেসিয়া জুটি।

ফিরে দেখা ২০১৮ – বছরের সমালোচিত মিউজিক ভিডিও

viral-bangla-music-videos

প্রতিবছরই আমাদের দেশে প্রকাশ পায় বেশ কিছু জনপ্রিয় মিউজিক ভিডিও। চলতি বছরেও বেশ কিছু বাংলা মিউজিক ভিডিও ইউটিউব কাঁপিয়েছে। তবে এবছর সমালোচিত হয়েছে নুসরাত ফারিয়ার ‘পটাকা’ ও সিয়ামের ‘হাজির বিরিয়ানি’ নামের এই দুটি মিউজিক ভিডিও। যদিও মিউজিক ভিডিও হিসেবে নয়, মূলত গানের কথা নিয়েই আলোচনার ঝড় তুলেছিল মিউজিক ভিডিও দুটি।

জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়ার গাওয়া প্রথম গান ছিল ‘পটাকা‘। আর নিজের গাওয়া প্রথম গানেই ইউটিউবে অপ্রত্যাশিতভাবে ডিজলাইকের রেকর্ড গড়েন এই নায়িকা। গানটি একইসাথে নেচেছেনও উপস্থাপিকা থেকে নায়িকা বনে যাওয়া নুসরাত ফারিয়া। মূলত দর্শকদের দাবি, গানটি অর্থহীন! আর এতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোচনার ঝড় উঠে পটাকার বিপক্ষে। একে একে দর্শকরা দিতে শুরু করে ডিজলাইক। কমেন্টেও বাদ যায় নি সমালোচনা। পরিস্থিতি যখন বেগতিক। এমতাবস্থায় মিউজিক ভিডিওটির লাইক ডিজলাইক সংখ্যা প্রদর্শন বন্ধ করে দেয় চ্যানেলটি। সর্বশেষ ৩মে, ২০১৮ তারিখ পর্যন্ত, ইউটিউবে ‘পটাকা’ গানটিতে ‘লাইক’ ছিল ১৩ হাজার। অন্যদিকে ‘ডিজলাইক’ সংখ্যা ১ লাখ ২ হাজার! আর এখন পর্যন্ত মোট ভিউ সংখ্যা ৫৩ লাখ।

চলতি বছরে সমালোচিত আরেকটি মিউজিক ভিডিও হল সিয়ামের ‘হাজির বিরিয়ানি‘। পটাকার মতো এই ‘হাজির বিরিয়ানি’ গানটিরও কথা নিয়েই শুধু আপত্তি জানিয়েছে মিউজিক ভিডিওটির দর্শকরা এবং খ্যাতনামা বেশ ক’জন সংগীত শিল্পী। ‘হাজির বিরিয়ানি/ মালে ঢাল পানি/ গাঁজা দেরে টানি/ চড়বে নেশা জমবে খেল/ থাকলে আমদানি/ মাতাল হয়ে হিসু করব দেয়ালে/ শালা যা হবে দেখা যাবে কাল সকালে।’ গানটির কথাগুলো ছিল ঠিক এমনই। গানটির কথা লিখেছেন কলকাতার প্রিয় চট্টোপাধ্যায় এবং সংগীত পরিচালনা ও গেয়েছেন ওপার বাংলারই আকাশ সেন। দহন সিনেমার সমালোচিত এই মিউজিক ভিডিওটি পরবর্তীতে ইউটিউব থেকে সরিয়ে নিয়ে আপলোড করা হয়েছে গানটির নতুন ভার্সন। নতুন গানে দেয়া হয়েছে বিতর্কিত ও আপত্তিকর কথা।

ফিরে দেখা ২০১৮ – সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলে রাতারাতি সেলিব্রেটি হয়েছেন যারা!

sefuda

বলতে গেলে বাংলাদেশে ফেসবুক এখন ভাইরাল হওয়ার সেরা প্লাটফর্ম হিসেবেই পরিচিতি পেয়েছে। তাই, ইতিবাচক কিংবা নেতিবাচক! যেকোনভাবেই বিভিন্ন সময় নানা আলোচনার জন্ম দিচ্ছে বিভিন্ন ঘটনা এবং সেই ঘটনার পিছনের মানুষ। আর তাতেই রাতারাতি সেলিব্রেটি বনে যাচ্ছেন অনেকেই। এক নজরে দেখে নিন, সোশ্যাল মিডিয়ার কল্যাণে যারা হয়ে উঠেছেন সেলিব্রেটি!

সেফুদাঃ বাংলাদেশের সোশ্যাল মিডিয়ার জগতে কে চিনে না এই মানুষটিকে? সোশ্যাল মিডিয়ার কথা বাদই দিলাম। সোশ্যাল মিডিয়ার বাহিরেও এখন মুখে মুখে একটাই নাম ‘সেফুদা‘। সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুক ও ইউটিউবে নানা ধরণের অশ্লীল, অসঙ্গতিপূর্ণ ভিডিওবার্তা ছড়িয়ে রাতারাতি সেলিব্রেটি হয়ে গেছেন সিফাত উল্লাহ ওরফে সেফুদা নামের এক প্রবাসী বাংলাদেশী।

সুবাহঃ নাসিরের একাধিক গার্ল ফ্রেন্ডের ইস্যু অনেক পুরোনো। কিন্ত এ বছর হঠাত ফেসবুকের মাধ্যমে আলোচনায় আসে সুবাহ নামের একটি মেয়ে। যে কিনা নাসিরের গার্ল ফ্রেন্ড হিসেবে নিজেকে দাবি করে। ফেসবুক লাইভে এসে নাসিরের নামে নানা কুরুচিপূর্ণ কথা বলে রাতারাতি আলোচনার ঝড় তুলে এই সুবাহ

সানাইঃ ঢাকাই চলচ্চিত্রের উঠতি নায়িকা সানাই মাহবুব সুপ্রভা। বছরের শেষদিকে এসে ফেসবুক, ইউটিউব আর টিকটক অ্যাপ কাঁপিয়েছেন এই সানাই। ইউটিউব এবং টেলিভিশন চ্যানেলে ব্রেস্ট ব্রেস্ট ইমপ্ল্যান্টের মাধ্যমে স্তনের আকার বড় করার সাক্ষাৎকার দিয়ে রাতারাতি সেলিব্রেটি বনে গেছেন এই উঠতি নায়িকা। ফেসবুক, ইউটিউব এবং টিকটক অ্যাপের মাধ্যমে নিয়মিত অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ছড়ানোর অভিযোগ রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে।

নাদিম সানিঃ হলফ করে বলা যায়, নাদিম সানি নামের কাউকে নিশ্চয়ই আপনি চিনেন না! তাহলে উনি কে? নাদিম সানি পরিচয়ে তিনি পরিচিতি না পেলেও তাঁর জনপ্রিয়তা এখন সারাদেশ জুড়ে। তিনি হলেন ঢাকা ৭ আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশী আওয়ামিলীগ নেতা আলহাজ্ব হাসিবুর রহমান মানিকের তুলে ধরা শিল্পী (র‍্যাপার)। এবারের জাতীয় নির্বাচন উপলক্ষে “মানিক ভাইয়ের সালাম নিন, নৌকা মার্কায় ভোট দিন” শিরোনামের র‍্যাপ গান গেয়ে রাতারাতি সেলিব্রেটি হয়ে উঠেন এই নাদিম সানি। যদিও তাঁকে সবাই মানিক ভাইয়ের পরিচয়েই চেনে।

ফিরে দেখা ২০১৮ – প্রতিভাবান তরুণ সংগীত তারকাদের উদয়!

mahtim-shakib

ইউটিউব এবং ফেসবুকের কল্যাণে এ বছর উঠে এসেছে বেশ ক’জন প্রতিভাবান তরুণ সংগীতশিল্পী। যাদের জনপ্রিয়তা এখন দেশ ছাড়িয়ে বহির্বিশ্বেও। এমনই উল্লেখযোগ্য চারজন হলঃ মাহতিম সাকিব, আরমান আলিফ, নোবেল এবং টুম্পা খান।

ইউটিউবে উদয় হয়ে হয়ে ইউটিউব-ফেসবুক দুই প্লাটফর্মেই মাত্র একটি গানের মাধ্যমে কোটি শ্রোতার মন কেড়েছে মাহতিম সাকিব নামের এক কিশোর। ২২ মে, ২০১৮ তারিখে মাহতিম সাকিব তাঁর ইউটিউব চ্যানেলে “এই মন তোমাকে দিলাম” গানটি ভিন্ন ধাঁচে গেয়ে আপলোড করেন। বাকিটা আসলেই ইতিহাস! মাত্র ৮ দিনে সেটি ভিউ হয় মোট লাখ ২৪ হাজার বার। রাতারাতি সেলিব্রেটি বনে যান মাহতিম সাকিব। এরপর অনেক গানেই গলা মিলিয়েছে এই কিশোর সঙ্গীত শিল্পী। বের হয়েছে মাহতিম সাকিবের গাওয়া মৌলিক গানও।

মাইয়া রে মাইয়া তুই অপরাধী রে“। বাংলা গান শুনেছেন এমন কেউ এই গানটি শুনেননি। তা বোধয় সম্ভব নয়! কারণটাও খুব স্বাভাবিক। প্রথমবারের মতো বাংলাদেশী কোন গান ইউটিউবে গ্লোবাল র‌্যাঙ্কিংয়ে ১০০টি গানের মাঝে ৮০তম স্থান নিয়ে নেয়। অর্জনটা বিশাল। কিন্ত গানটির শিল্পী পরিচিত কোন শিল্পীর গাওয়া নয়! মূলত এই গানের মাধ্যমেও আবির্ভাব ঘটে তরুণ সংগীতশিল্পী আরমান আলিফের। এখন পর্যন্ত তাঁর অপরাধী গানের মিউজিক ভিডিওটির ভিউ ১ কোটি ৯৭ লাখ ছাড়িয়েছে। অপরাধী গানটির জনপ্রিয়তার পর আরমান আলিফের আরও বেশ কয়েকটি গান রিলিজ হয়েছে ইউটিউবে।

আরমান আলিফেরই “অপরাধী” গান গেয়েই ভাইরাল হওয়া আরেক শিল্পী হলেন টুম্পা খান। ইউটিউবে তাঁর পদচারনা যদিও অনেক আগে থেকেই। তবে এ বছরই তাঁর জনপ্রিয়তা তুঙ্গে উঠে “অপরাধী” গানটি কভার করার পর থেকে। টুম্পা খান মূলত বিভিন্ন জনপ্রিয় গান কভার করে আপলোড করে থাকেন তাঁর নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলে।

সর্বশেষ জনপ্রিয়তা পাওয়া তরুণ শিল্পী ‘নোবেল’। বাংলালিংক নেক্সট টিউবার প্রতিযোগিতা থেকে যাত্রা শুরু হলেও সম্প্রতি ভারতীয় টেলিভিশন চ্যানেল জি বাংলায় প্রচারিত ‘সারেগামাপা’ অনুষ্ঠানে গান গেয়ে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে উঠে গেছেন নোবেল। এছাড়া “নোবেল ম্যান” নামের নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলেও কভার করা গান আপলোড করেন তিনি।

ফিরে দেখা ২০১৮ – ছাত্র আন্দোলনের জয়জয়কার

student-movement-bangladesh-2018

ছাত্র আন্দোলন

ছাত্রদের আন্দোলন কতটা শক্তিশালী হতে পারে। তা ইতিহাসেই লিখে রাখা আছে। তবে এ বছর আবারো সেটা প্রমান করেছে ছাত্রদের দুটো বড় আন্দোলন। প্রথমত, “কোটা সংস্কার আন্দোলন” এবং পরবর্তীতে হয় “নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন”। দুটো আন্দোলনই সফল এবং এই আন্দোলনে ছাত্রদের গণজোয়ার এতোটাই ছিল যে তা আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে পর্যন্ত হাইলাইট হয়েছিল।

ফিরে দেখা ২০১৮ – ভাইরাল ইস্যুর বছর

john-mithila

ছোট বড় ভাইরাল অসংখ্য ইস্যুর মধ্য দিয়েই শেষ হতে যাচ্ছে চলতি বছর। তেমনি কিছু খুচরা ভাইরাল ইস্যু দেখে নেয়া যাকঃ

ফুটবল বিশ্বকাপ ২০১৮ঃ এ বছর অনুষ্ঠিত হয়েছে ফুটবল বিশ্বকাপ ২০১৮। আর ফুটবল বিশ্বকাপ মানেই মাঠের বাহিরে সোশ্যাল মিডিয়াতেও ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার যুদ্ধ। আর তাই ফেসবুকে পুরো বিশ্বকাপ চলাকালীন সময়ে ভাইরাল হয়েছে ছোট ছোট অনেক ইস্যু।

হাইস্যকরঃ দু এক মাস পূর্বে মোটর শ্রমিকদের অবরোধ চলাকালীন সময়ে এক ক্ষুব্ধ পথচারীর সাক্ষাৎকার থেকে ‘হাইস্যকর‘ শব্দ উচ্চারনতঁই সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ ভাইরাল হয়।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটঃ এ বছর মহাকাশে উৎক্ষেপণ করা হয় বাংলাদেশের প্রথম স্যাটেলাইট। বিষয়টি আমাদের জন্য অনেক গর্বের হলেও সেটাকে নিয়ে বেশ আলোচনা সমালোচনা দেখা গিয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

নৌ মন্ত্রীর হাসিঃ ঢাকায় মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনার পর টেলিভিশন সাক্ষাৎকার দেয়ার সময় তিনি বিষয়টি অবজ্ঞা করে হাসেন। যা সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে নিন্দা জানিয়েছেন সাধারণ মানুষ।

মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৮ঃ সুন্দরী খোঁজার এই প্রতিযোগিতার গ্রান্ড ফিনালে দুই প্রতিযোগির “H2O” এবং “Wish” টপিকটি বেশ ভাইরাল হয়েছিল ফেসবুক এবং ইউটিউবে।

ঢাকার রাস্তায় ভাইরাল ক্লিপসঃ এ বছর ঢাকার রাস্তায় দুটো ঘটনার ভিডিও ক্লিপস সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলেছে। প্রথমটি হল, পুলিশ সার্জেন্টকে এমপির মেয়ে পরিচয় দেয়া এক মহিলার শাসানো এবং অপরটি, রিকশাওয়ালাকে মারধর করা এক আওয়ামিলীগ নেত্রীর ভিডিও ক্লিপস।

তামিমের এক হাতে ব্যাটিংঃ আবেগঘন এই ঘটনা বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে হয়ে থাকবে স্মরণীয়। হাতের আঙ্গুলে চোট পাওয়া তামিম ইকবাল ম্যাচের শেষ দিকে দেশের জন্য এক হাতেই নেমে পড়েন মাঠে। অবাক বিশ্ব তাকিয়ে দেখেছে তামিমের এক হাতে ব্যাটিং এবং দেশের প্রতি তাঁর ভালবাসা।

মুশফিকের নাগিন ড্যান্সঃ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ জয়ের পর মুশফিকের নাগিন ড্যান্সটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল করেছিল ক্রিকেটপ্রেমী দর্শকরা। এই নাগিন ডান্সটি মূলত ক্রিকেটার অপুর সেলিব্রেশন হিসেবে পরিচিত।

আইয়ুব বাচ্চুর চিরবিদায়ঃ গত ১৮ অক্টোবর মারা যান আমাদের দেশের কিংবদন্তি সঙ্গীতশিল্পী আইয়ুব বাচ্চু

মিথিলা-জনের সেলফিঃ কিছুদিন আগে গোটা ফেসবুক জুড়ে আলোচনার তুঙ্গে ছিল জন-মিথিলার ঘনিষ্ঠ একটি সেলফি। মূলত, জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী জন কবিরের ফেসবুক আইডি থেকে পোস্ট হওয়া সেলফিটি প্রকাশের পর পরই তা ভাইরাল হয়ে যায় ফেসবুকে।

মাশরাফি এবং হিরো আলমের নির্বাচনঃ দেশের অন্যতম সম্মানিত ব্যক্তি এবং জনপ্রিয় ক্রিকেট তারকা মাশরাফি নির্বাচনে অংশগ্রহনের ঘোষনার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপল সমালোচিত হয়েছেন তিনি। অন্যদিকে, সোশ্যাল মিডিয়া থেকে উঠে আসা সেলিব্রেটি হিরো আলমও অনেক হাসি ঠাট্টার মুখোমুখি হয়েছেন নির্বাচনে দাড়ানোর পর থেকে।

ফিরে দেখা ২০১৮ – অতঃপর জাতীয় সংসদ নির্বাচন

অনেক আলোচিত ইস্যুতে ভরপুর ছিল চলতি বছর। আর এই বছরটি শেষ হচ্ছে দেশের সবচেয়ে আলোচিত ইস্যু ‘জাতীয় সংসদ নির্বাচন ২০১৮’ অনুষ্ঠিত হওয়ার মধ্য দিয়ে। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সোশ্যাল মিডিয়াতে আলোচনার ঝড় তুলছে একের পর এক ছোট বড় ঘটনা।

কেমন লাগলো “ফিরে দেখা ২০১৮” রিভিউ পোস্টটি। কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না বাদ পড়া অন্যান্য ভাইরাল টপিকগুলোও! সবাইকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা রইল!

সর্বশেষ আপডেট করা হয়েছে: জুলাই ১১, ২০১৯

পোস্টটি লিখেছেন

আব্দুল্লাহ আল মারুফ

আমি মারুফ। রংপুরে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে একাউন্টিং নিয়ে পড়াশুনা করছি। পড়াশুনার পাশাপাশি অনলাইন মার্কেটপ্লেসে কাজ করছি ফ্রিল্যান্স আইটি প্রফেশনাল হিসেবে। আর ভাললাগে অনলাইনে লেখালেখি করতে...

২ টি মন্তব্য

মন্তব্য দিন
  1. ভাই আপনার ওয়েবসাইট এর মতো এমন ডিজাইন এর কী কোন টেমপ্লেট পাওয়া যাবে।
    ভাই থাকলে আমাকে একটু জানিয়েন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *